এই সাইটের কোন লেখা কপি করা নিষেধ

ওয়ার্ডপ্রেস থিম

ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে ধারাবাহিক টিউটোরিয়ালে আপনাদের স্বাগতম। গত পর্বে আলোচনা করেছিলাম ওয়ার্ডপ্রেসের সাইটে পাঠকদের মন্তব্য পরিচালনা করার পদ্ধতি নিয়ে। আজকের আলোচনার বিষয় ওয়ার্ডপ্রেস থিম ও প্লাগিং নিয়ে। তো চলুন শুরু করা যাক…

ওয়ার্ডপ্রেস থিমঃ প্রাথমিকভাবে ওয়ার্ডপ্রেস থিমকে শুধু মাত্র সাইটের বা ওয়েব্লগের বাহিরের রূপ/অবয়ব/চেহারা বলা চলে। ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের টেমপ্লেট পরিবর্তন করার পরেও এটিকে শুধুমাত্র আপনার ওয়েব্লগের চেহারার পরিবর্তন হিসেবেই জানবেন। ওয়ার্ডপ্রেসের একটি টেমপ্লেট ব্যবহার করে আপনি আপনার সাইটের সব কনটেন্টকে আপনার ইচ্ছাধীন নিয়ন্ত্রন করতে পারেন।

theme

একটি ওয়ার্ডপ্রেস থিম অনেকগুলো ফাইল ব্যবহার করে তৈরী হয়, যেগুলোর সমন্বয়য়ে আপনার সাইটে ব্যবহৃত থিমটি গ্রাফিকাল চেহারা পায়। যেমনঃ টেম্পলেটের জন্য প্রয়োজনীয় ইমেজ ফাইল। থিমটির কাঠামোকে ধরে রাখতে স্টাইল সীট(style.css) ফাইল, এবং এইচটিএমএল (.html) এবং পিএইচপি(.php) এর সমন্বয়য়ে ফ্যাংশনাল ফাইল।

এককথায়, ইমেজ, স্টাইল এবং ফ্যাংশনাল ফাইলের সমন্বয়য়ে আপনার ওয়েবসাইট/ওয়েব্লগ এর কনটেন্টকে পাঠক বা গ্রাহকের সামনে দৃষ্টিনন্দন করে উপস্থাপন করার জন্য ওয়েবসাইট/ওয়েব্লগ এর যে অবয়ব তৈরী করা হয় সেটাই থিম।

ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস-টি আপনার ডোমেইনে ইন্সটল করার পরপরই আপনি বাই ডিফল্ট যে থিমটি পাবেন সেটির নামঃ Twenty Eleven। ওয়ার্ডপ্রেসের আরও থিম দেখতে পারেন ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডিরেক্টরিতেঃ http://wordpress.org/extend/themes/

এছাড়া আরও থিম পাবেনঃ

http://wordpressthemesbase.com/
http://freewordpressthemes.com/
http://wptemplates.org/
http://freewpthemes.net/
http://wpskins.org/
http://wpcorner.com/
http://skinpress.com/

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য আপনি ২ ভাবে থিম ইন্সটল করতে পারেন- ১. সরাসরি ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড (Appearnace>Themes) থেকে এবং ২. এফটিপি সফটওয়্যার দিয়ে সার্ভারে আপলোড করে। এগুলো নিয়ে পরের পোস্টে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

Comments (No)

Leave a Reply