এই সাইটের কোন লেখা কপি করা নিষেধ

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে কিছু কথা

হ্যালো বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই, আশা করি সকলে ভালো আছেন আজ আপনাদের সামনে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে কিছু আলোচনা করব। ইন্টারনেট এ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং একটি খুব জনপ্রিয় আয়ের মাধ্যম। ইন্টারনেট জগতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নানা ভাবে হয়ে থাকে। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বলতে আমরা জানি অন্য কারো প্রোডাক্ট কিংবা সেবা মানুষের কাছে কমিশন এর মাধ্যমে বিক্রয় করা আর বিক্রয় করার পর একটা নিদিষ্ট প্রাপ্য কমিশন আপনি তার কাছ থেকে পাবেন

কোথায় করবেন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং?

ইন্টারনেটে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার অনেক গুলো প্লাট ফ্রম আছে যেখান থেকে আপনি খুব সহজে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন, এর ভিতর আছে আমাজন অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম, ক্লিক ব্যাংক, ক্লিক শিউর, ইবে অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম সহ আরো বেশ কিছু জনপ্রিয় অ্যাফিলিয়েট মার্কেট প্লেস এ

কিভাবে শুরু করবেন

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে হলে আপনি বেশ কিছু মেথডে কাজ করতে পারেন যেমন ব্লগ লিখে কিংবা নিশ ওয়েব সাইট তৈরি করে । ব্লগ লিখে অ্যাফিলিয়েট করার থেকে নিশ ওয়েব সাইট এর মাধ্যমে করা খুব ভালো। নিশ ওয়েব সাইট বলতে একটা নিদিষ্ট প্রোডাক্ট এর উপর ওয়েব সাইট তৈরি করে সেই প্রোডাক্ট এর উপর ভালো করে ইনফরমেশন দেওয়া যাতে করে সবাই আপনার ইনফরমেশন গুলো পড়ে সেই প্রোডাক্ট টি কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করে।

এছাড়া আরো বেশ কিছু কাজ আছে এটা করার জন্য যেমন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য প্রথমে আপনাকে নিদিষ্ট প্রোডাক্ট নির্বাচন করতে হবে, প্রোডাক্ট এর কি ওয়ার্ড রিসার্চ করতে হবে, আপনাকে মার্কেটিং করতে হলে খুব ভালো করে ব্লগ বা ওয়েব সাইট করতে হবে যদি আপনি নিশ প্রোডাক্ট এর উপর মার্কেটিং করেন, নিদিষ্ট প্রোডাক্ট এর উপর খুব ভালো হাই কোয়ালিটির রিভিউ কন্টেন্ট লিখতে হবে, এবং আপনার ব্লগে বা ওয়েবসাইটে কাঙ্ক্ষিত ভিজিটর আনতে হবে এর জন্য আপনি এসইও, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, ইমেল মার্কেটিং করতে পারেন এর মাধ্যমে আশা করি আপনার নিদিষ্ট প্রোডাক্ট মার্কেটিং করে আপনার কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পেতে পারেন।

বন্ধুরা আশা করি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর উপর কিছুটা হলেও আপনাদের ধারনা দিতে পেরেছি এবং আগামিতে আরো ভালো কিছু নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হতে পারব সে প্রজন্ত সকলে ভালো থাকবেন

ধন্যবাদ

Comments (No)

Leave a Reply