আপনার বাড়িকে ‘স্মার্ট হোম’ বানিয়ে ফেলুন

ইন্টারনেট অব থিংকস বা আইটির সম্প্রসারণের সঙ্গে সঙ্গে ‘স্মার্ট হোম’ সিস্টেমের ব্যবহার বাড়ছে। হোম অটোমেশনের উত্থানের সঙ্গে তাল মেলাতে হলে প্রয়োজন কিছু ডিভাইস এবং দ্রুতগতির ইন্টারনেট কানেকশন। জেনে নিন নিজের বাড়িকে কীভাবে ‘স্মার্ট হোম’ বানিয়ে তুলবেন।

‘স্মার্ট হোম’ তৈরির পথে প্রথম ধাপ বাড়ির প্রত্যেক কোনে ভালো ইন্টারনেট কানেকশন। প্রয়োজনে কিছু রিপিটার লাগিয়ে বাড়ির প্রতি প্রান্তে ভালো ওয়াইফাই থাকা নিশ্চিত করা জরুরী।

স্মার্ট লাইট বাল্ব
স্মার্ট হোমের অন্যতম সাধারণ জিনিস স্মার্ট বাল্ব। এই ধরনের আলো নিজের স্মার্টফোন থেকে অন বা অফ করা যায়। এমনকি স্মার্টফোন থেকে স্মার্ট বাল্বের উজ্জ্বলতা কমানো বা বাড়ানো সম্ভব।

স্মার্ট স্পিকার
বাড়িতে স্মার্ট স্পিকার কিনলে তা বাড়ির বেশিরভাগ কাজ করে দেবে। গুগল, অ্যাপল, অ্যামাজন, স্যামসাং এই ধরনের স্পিকার তৈরি করে। কন্ঠস্বর দিয়ে এই স্পিকারকে নির্দেশ দিলে সকালে খবর কাগজ পড়ে দেওয়া থেকে যে কোন গান এই স্পিকারে চালিয়ে দেওয়া যাবে।

স্মার্ট সিকিউরিটি ক্যামেরা
বাড়ির প্রধান দরজা, বাড়িতে শিশুদের ঘরে এই ধরনের ক্যামেরা লাগিয়ে দিতে পারেন। এই ক্যামেরার মাধ্যমে যেকোন সময় নিজের স্মার্টফোন থেকে দেখে নিতে পারবেন সেই স্থানে কী হচ্ছে।

স্মার্ট সুইচ
দাম একটু বেশি হলেও স্মার্ট সুইচের সাহায্যে বাড়ির লাইটগুলোকে দারুন উপোযোগী করে তোলা যায়। এর মধ্যে বেশিরভার সুইচেই মোশন সেন্সর থাকে।

আইওটি অ্যাপলায়েন্স
ওয়াইফাই এনেবেলড গিজার, রেফ্রিজারেটার, ওয়াশিং মেশিন এর মতো যেকোন হোম অ্যাপলায়েন্স ওয়াইফাই এর মাধ্যমে চালানো বন্ধ ও কন্ট্রোল করতে পারবেন।

আমি একজন ফ্রিল্যান্সার। নিজে আয় করার পাশাপাশি নতুনদের সহযোগীতা করতে ভালবাসি। এসো আয় করি ডট কমে নিয়মিত আর্টিকেল লেখি।
Please follow and like us:
0

Leave a Reply