এই সাইটের কোন লেখা কপি করা নিষেধ

পিটিসি সাইটের নতুন কিছু কথা এবং আমাদের করণীয়।

মোনজরুল ইসলাম দুলু

এই লেখাটি প্রতিদিন, প্রতি মুহুর্তে আপডেট করা হবে। তাই সব সময় চোখ রাখুন আর জেনে নিন পিটিসি সাইটের নতুন নতুন খবর।

 

Payza, Payoneer এবং SolidTrust এ একাউন্ট খুলুন

অতি সহজেই একাউন্ট করতে নিচের নামের উপরে ক্লিক করে ফ্রি একাউন্ট খুলুন-

PAYZA

PAYONEER

SOLIDTRUSTPAY

যেকোনো নামের উপর ক্লিক করুণ। ক্লিক করার পর একটি পাতা বের হবে। তারপর sign up এ ক্লিক করে নিয়ম পালন করে একাউন্ট করেন।

বিশ্বের সেরা, বিশ্বস্থ ও প্রথম পিটিসি সাইট Clixsense এর দিক নির্দেশনা নিয়েই কিছু লিখবো

Clixsense একটি পুরাতন ও বিশ্বস্থ পিটিসি সাইট। এ প্রতিষ্ঠানটি ২০০৭ সাল থেকেই অনলাইনে আছে।  Clixsense এর মূল কাজ কোন প্রতিষ্ঠানের পন্য ও সেবা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রচার করা। আপনার যদি একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট থাকে তাহলে Clixsense এ আপনার সাইটের বিজ্ঞাপন দিয়ে ভিজিটর বাড়াতে পারেন এবং Clixsense থেকে বিজ্ঞাপন দেখেও আরো অন্যান্য কাজ করে আয় করতে পারবেন।

আরো বিস্তারিত জানতে ভিজিট করতে পারেন

অধিক জানতে এখানে ক্লিক করুণ

Clixsense সাইটের পরিচিতি:

রেজিট্রেশন লিংক:

http://www.clixsense.com/?7991690

 

Description:

Make money online with paid surveys, free offers and paid per click advertising.

Domain age: 9 years, 75 days.

Website speed: very fast.

Web site value: $2010851.42

Owner: James Grago

Owner Address: 210 Bates retreat, city:Hampstead, Post code: 28443, Phone No: +1.9103190966, email: info@clixsense.com, Country: United states, web site Location: United states.

Web site updated Date: 09-12-2015
Web site creation Date: 29-12-2006
Web site Expiration Date: 20-12-2021

Standard Member দের আয়ের পরিমাণ:

> প্রতিদিন মোট বিজ্ঞাপন: 25 টির মত।

> প্রতি ক্লিকের মূল্য: 0.001 সেন্ট এবং ১টি বোনাস এড 0.01 সেন্ট ।

> দৈনিক আয়: 25টি এড × 0.001 পেনি = 0.025 সেন্ট ।

> মাসিক আয়: 30দিন × 0.020 সেন্ট = 0.600 সেন্ট ।

> মিনিমাম ক্যাশ আউটের পরিমাণ: ৮ $ ডলার ।

> ক্যাশ আউট প্রছেছর: পেইজা, পেপাল।

> এফিলিয়েট মার্কিটিং: ডিরেক্ট রেফারেল।(রেন্ট রেফারেল ব্যবস্থা নাই)

> অন্যান্য কাজ: মিনিজব করে আয়, কয়েন আয়, পয়েন্ট আয়, সার্ভে, ClixGrid  ইত্যাদির মাধ্যমে।

Clixsense এ আয় বাড়ানোর জন্য ২টি পদ্ধতি:

> মিনিজব

> ডিরেক্ট রেফারেল

> মিনিজব: Clixsense এ মিনিজব করে আয় বাড়ানো যায়। প্রথম দিকে মিনি জব আসে না। এক দেড় মাস কাজ করার পর মিনি জব আসা শুরু করে। মিনি জব থেকে আয় পেতে হলে প্রতিটি কাজের সাকসেস রেট ৮০% থাকতে হয়। প্রতিটি মিনিজবের জন্য 0.01 সেন্ট থেকে 1 ডলার দেওয়া হয়। Crowdflower নামক একটি ওয়েব সাটের মাধ্যমে মিনিজবের কাজগুলো সম্পূন করতে হয়। কাজ কীভাবে করতে হয় সেটি কাজের সাথে সাথে বিবরণ দেওয়া থাকে।

> ডিরেক্ট রেফারেল: Clixsense এ ডিরেক্ট রেফারেল এর মাধ্যমে আয় করা যায়। আপনার রেফারেল লিংক ব্লগ, ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাস, ফোরামে প্রচার করুন। আপনার রেফারেল লিংকের মাধ্যমে অন্য কাউকে রেজিষ্ট্রেশন করিয়ে আয় বাড়াতে পারেন।

অসুবিধা:

> ১টি কম্পিউটার থেকে ১টির বেশি একাউন্ট খোলা যাবে না।

> ১টি ফ্রিক্স আইপি লাগবে। মানে মডেল ব্যবহার করতে হবে।

> এক সাথে ২টি বিজ্ঞাপন দেখা যাবে না।

Clixsense এ রেজিষ্টশন করতে নিচের ব্যানারে ক্লিক করুন:

 

> কীভাবে রেজিষ্ট্রেশন করবেন:

প্রথমে সাইন আপ বাটনে ক্লিক করুন, তারপর নাম, পাসওয়াড, ইমেল, ইউজার নাম, ক্যাপচা টাইপ করে সাইপ আপ বাটনে ক্লিক করুন। তারপর ইমেল ভেরিফাই করে একাউন্ট রেজিষ্ট্রশন প্রক্রিয়া শেষ করুন।

> কীভাবে কাজ করবেন:

একাউন্টে লগইন করার পর View advertisement বাটনে ক্লিক করুন। তারপর একটি এড এ ক্লিক করুন। তারপর ৪টি প্রাণীর চিত্র দেখতে পাবেন। চিত্রগুলো থেকে বিড়ালের উপর ক্লিক করুন। তারপর আপনার এড দেখা শুরু হবে। এড দেখা শেষ করার জন্য কিছু সময় অপেক্ষা করুন।তারপর একটি মেসেজ আসলে আপনার একাউন্টে 0.001 সেন্ট জমা হবে।

Clixsense থেকে বাংলাদেশে টাকা উঠানোর উপায়:

Payza একটি অনলাইন ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশে Payza এর অনুমোদন আছে। এর জন্য আপনার একটি Payza একাউন্ট খুলতে হবে।

Payza একাউন্ট খুলার জন্য এখানে ক্লিক করুন অথবা নিচের ব্যানারে ক্লিক করুন।

Sign-up-Payza

 

Payza দিয়ে আপনি ৩ পদ্ধতিতে টাকা দেশে আনতে পারেন।

১. কেডিট কার্ড

২. ব্যাংকের মাধ্যমে

৩. ওয়্যার ট্রান্সফার।

তাছাড়া আপনি আপনার পরিচিত লোকের মাধ্যমে Payzaর ডলার বিক্রি করতে পারবেন।

অত্যন্ত ভালো এবং পেমেন্ট দিচ্ছে এমন কয়েকটি পিটিসি সাইটের তালিকা, কাজ করতে পারেন আজ থেকে !!!

http://www.neobux.com/?r=Nazruld

http://www.clixsense.com/?7991690

http://www.dollarclix.com/members/register.php?ref=nazruld

https://trafficmonsoon.com/?ref=nazruld

http://clixten.info/?ref=nazruld

http://www.easyhits4u.com/?ref=nazruld

http://popcash.net/register/101194

http://www.epicbux.com/?r=nazruld

http://www.olybux.com/?ref=nazruld

http://www.epicclix.com/?ref=nazruld

http://okik.me/?ref=nazruld

http://www.enobux.com/?r=nazruld

যোগাযোগ
০১৭১৬৩৮৬৯৫৮

আরো বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুণ

http://www.earnmoneyonline24bd.com

http://www.earnmoneyonline58.blogspot.com

নিউবাক্স থেকে আয় করতে চাইলে পোষ্টটি এক নজরে পড়ে ফেলুন।

পোষ্টটি পুরাতনদের জন্য অতিব জরুরি !!!

 

আমরা অনেকেই হয়তো  Neobux এ কাজ করা শুরু করে দিয়েছি বা অনেক দিন ধরে কাজ করছি কিন্তু ইনকাম করতে পারছি না একেবারেই। অনেকে আবার নিউবাক্সে কাজ  শুরু করব ভাবছি, কেউ আবার ভাবছি জগতে কত পিটিসি সাইটের নামতো শুনলাম, বেশির ভাগই স্ক্যাম করে চলে যায়। কিন্তু ৯৯% নিশ্চয়তা এই সাইটটিতে পাবেন। এই সাইট থেকেই  আয় করার ইচ্ছা নিয়ে কাজ শুরু করুণ ইনশা অাল্লাহ আপনিও সফল হবেন। তবে এক্ষেত্রে একটু ভাল দিক নির্দেশনার প্রয়োজন রয়েছে।

প্রারম্ভিক বক্তব্য

নিউবাক্স পিটিসি সাইটের একটি আলোচিত নাম। পৃথিবীতে প্রায় লক্ষাধিক ব্যক্তি নিউবাক্স থেকে বড়লোক হয়েছেন যা অতিব সত্য। নিউবাক্সের আয় শুরু হয় অতি অল্প দিয়ে আর ৬-৯ মাস কাজ করার পর আয়ের পরিমাণ হয় অবিশ্বাস্য। এর জন্য দরকার একটু মাথা খাটানো আর থাকা চাই আত্মবিশ্বাস ও ধৈর্য্য। জানতে হয় নিউবাক্সের বিজনেস পলিসি। এক সময় বাংলাদেশে নিউবাক্স সম্পর্কে জানা শোনা লোক ছিল অল্প। বর্তমানে বাংলাদেশে অনেকেই কাজ করছেন এবং নিউবাক্স সম্বদ্ধে জানেন। কাজেই আপনার জন্য এখন বেটার চান্স।

ছোট একটি ধারণা:

আপনি শুরুতেই Neobux থেকে ভাল আয় করবেন এমনটা আশা করা থেকে বিরত থাকুন। ফ্রী মেম্বার হিসেবে যদি আপনি দিনে ২০টি অ্যাড ভিউ করেন তাহলে আপনার আয় হবে মাত্র ২ সেন্ট। তবে পরিকল্পনা করুন কিভাবে এই সেন্টকে ডলারে রূপান্তর করবেন।

সুবিধাসমূহ

1.withdraw দেয়ার সাথে সাথে  instant টাকা Paid করা হয়।

2.server অত্যন্ত ভালো ও very high speed.

3. মাত্র ২ ডলার হলেই withdraw করা যায়।

অসুবিধাসমূহ

  1. মোবাইল এবং প্যাড ব্যবহার করা নিষিদ্ধ।

  2. একটি কম্পিউটার  দিয়ে মাত্র একটি একাউন্ট করা যাবে।

  3. নিউবাক্সে কাজ করতে একটি সেপারেইট IP ব্যবহার করতে হবে।

 

আয়ের আসল ক্ষেত্র:

PTC সাইট সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার রেফারাল এর উপর।যার রেফারাল যতো বেশি তার আয় ততো বেশি। তাই আপনার যদি কোন রেফারাল না থাকে তাহলে ১ সেন্টকে ১ ডলারে রূপান্তরিত করতে অনেক সময় লেগে যেতে পারে।। হয়তো বা আপনি ততদিনে এই সাইট থেকে আয়ের আশাই ছেড়ে দিবেন। তাই Neobux এর সব থেকে ভাল দিক হল আপনার Direct রেফারাল  বাড়ানো। আর Direct রেফারাল না থাকলে নিউবাক্স থেকে রেন্ট রেফারেল ভাড়া করতে পারেন।

পববর্তী স্টেপ:

Direct রেফারাল কিভাবে বাড়াবেন এবং রেন্ট রেফারেলদের কিভাবে পরিচালনা করবেন তার আলোচনা এই সপ্তাহের ভিতরে আমি একটি গবেষণামূলক ফিচার পোষ্ট লিখব ইনশা আল্লাহ।আপনারা অবশ্যই আমার সাথে থাকবেন আশা করছি।

বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুণ –

এখানে ক্লিক করুণ

নিউবাক্স এর যাত্রা শুরু:

নিউবাক্স ২৫ মার্চ ২০০৮ সালে প্রাক রেজিষ্ট্রেশনের মাধ্যমে তাদের কাজ শুরু করেতারপর  অফিসিয়ালভাবে কাজের উদ্ভোন হয় ৩০ এপ্রিল ২০০৮ সালেশুরু থেকে এখন পর্যন্ত কোনো ঝামেলা ছাড়াই  neobux তাদের কাস্টমারদের পেমেন্ট দিয়ে আসছে বর্তমানে (neobux) এর ৩ কোটি মেম্বার আছে। তাছাড়া প্রতিদিন তাদের সদস্য সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

নিউবাক্স আমার যাত্রা শুরু এবং বর্তমান অবস্থা:

নিউবাক্স-এ আমার যাত্রা শুরু: ০১-০৯-২০১৫
গোল্ডেন মেম্বারশীপ অর্জন: ২৭-১০-২০১৫
গোল্ডেন প্যাক ক্রয়: ১১-১১-২০১৫
বর্তমানে  Direct Referrals :  ৭৭ জন
বর্তমানে Rental Referrals : ১৪৮৮ জন

প্রতিদিন নিউবাক্স থেকে আয় ২২/২৩ ডলার।

নোট : প্রথম থেকে এই লিখাটি পোস্ট করা পর্যন্ত একদিনও আমি কাজ মিছ করি নাই

যারা আমার রেফারেল লিংক ব্যবহার করে কাজ করতে ইচ্ছুক আমি তাদেরকে সব রকমের ট্রেনিং দিতে প্রস্তুতআসলে এই ছোট একটি সাইট নিউবাক্স-এ জানার আছে অনেক কিছুইনিউবাক্স এর পলিসি ভালোভাবে বুঝতে না পারলে আয় বাড়ানো খুবই কঠিনএকটি দ্রুভ সত্য কথা হলো পিটিসি সাইটে কাজ করে শতকরা ১০ জন লোক প্রতিষ্টিত হতে পারেনবাকী ৯০% লোক পিটিসি সাইটের নিয়ম না জানার কারণে এবং দৈর্য শক্তির অভাবে কিছুদিন কাজ করার পর কাজ করা ছেড়ে দেন

 নিউবাক্স থেকে দু’টি পদ্ধতিতে আয় করা যায়। নিচে বিস্তারিত আলোচনা হবে।

প্রথম পদ্ধতি

কোনো ইনভেস্ট না করে আয় করা:

এ পদ্ধতিতে আয় করতে একটু সময় লাগবে। কিন্তু একদিন না একদিন আপনার আয়ের পরিমাণ দেখে আপনি নিজেও অবাক হয়ে যাবেন।

 http://www.neobux.com/?r=Nazruld

অথবা নিচের ব্যানারে ক্লিককরে একাউন্ট খুলতে পারেন

Neobux Banner

উপরের লিংকে ক্লিক করে আপনি একটি ফ্রি একাউন্ট খুলুন। তারপর টানা ১৫ দিন কাজ করে যান।

Server Time পরিবর্তন হয়েছে (১৩-০৩-২০১৬ তারিখ থেকে)

যেই সময় আপনি একাউন্ট খুলবেন এই সময় হলো আপনার লকাল টাইম ( Local Time ) আপনি প্রতিদিন নিউবাক্স এর সার্ভার টাইমে ( Server Time ) ক্লিক করতে হবেআমাদের দেশীয় সময় সকাল ১০ ঘটিকার সময় নিউবাক্স এর নতুন দিন শুরু হয়এবার আপনি প্রতিদিন একাউন্টে ঢুকে এডগুলোতে ক্লিক করতে থাকুনএকদিনও যেন মিছ না হয়বিশেষ করে হলুদ রংয়ের ৪ টি নির্ধারিত এডে ( Fixed Advertisement ) ক্লিক করবেনতা না হলে আপনার রেফারেল কমিশন পাবেন নাআজকে যে এডগুলোতে কিালক করবেন তার বিনিময়ে আগামী কালকে আপনার রেফারেল কমিশন দেয়া হবে

কিভাবে কাজ করবেন:

লগিং করার পর উপরে View Advertisements লিখায় ক্লিক করে প্রতিটি এড দেখা শুরু করবেন। এভাবে সব কয়টি এডে ক্লিক করে এড দেখবেন। বিশেষ করে হলুদ রংয়ের ৪টি (Fixed Advertisements) এডগুলোতে ক্লিক করবেন। তা না করলে আপনার রেফারেল ইনকাম পাবেন না। এডগুলো দেখার সময় কোনো কোনো কম্পিউটারে Flash না থাকলে সমস্যা হবে। এ রকম সমস্যা ধেখা দিলে Flash player টি download করে install করে নিবেন। নিচের লিংকে ক্লিক করলেই এই flash player download করতে পারবেন।

আয় বাড়াবেন কিভাবে :

টানা ১৫ দিন কাজ করার পর আপনি রেফারেল ঢুকানোর যো্গ্যতা অর্জন করবেনতখন আপনার রেফারেল লিংক কপি করে তা বন্ধুদের কাছে অথবা আত্মীযদের কাছে শেয়ার করুনতাদেরকে আপনার লিংকে ঢুকাতে থাকুনআস্তে আস্তে আপনার আয় বেড়ে যাবেযখন আপনার একাউন্টে ৬০০ পয়েন্ট জমা হবে তখন ৩ জন রেন্ট রেফারেল ভাড়া করবেণএতে আপনার আয় আরো বেড়ে যাবেএভাবে টাকা উত্তোলন না করে রেন্ট রেফারেল বাড়াতে থাকুন যতক্ষন না আপনার রেন্ট রেফারেল ( Rental Referrals ) 250 হবে। 250জন রেন্ট রেপারেল হলে 90ডলার দিয়ে চাইলে আপনি গোল্ডেন মেম্ভারশীফ আর্জন করতে পারেনতাহলে আপনার আয়ের পরিমাণ অনেক গুণ বেড়ে যাবেরেন্টাল রেফারেল ক্লিক করলে আপনার একাউন্টে ব্যালেন্স জমা হবেআর হ্ঁ্যা, যে সকল রেন্টাল রেফারেল ৫ দিন পর্যন্ত ক্লিক না করবে তাদেরকে রিসাইকেল (Recycle)করবেন। 

১৫ দিন কাজ করলে কি দাড়াবে?

১৫ দিন কাজ করার কারণে আপনার একাউন্ট ব্যালেন্স হতে পারে:- ৩২ গুণ ০.০০১ গুণ ১৫ দিন = ৪৮০ পেনি। এখনো আপনার ১ ডলার হতে বাকী আছে ৫২০ পেনি।১৫ দিন কাজ করার কারণে আপনি Direct Referrals প্রবেশ করানোর যোগ্যতা অর্জন করলেন। ১৫ দিন পর আপনি কয়েক জন Direct Referrals ঢুকাতে পারেন। যারা কাজ করলে প্রতিদিন আপনার একাউন্টে ব্যালেন্স জমা হবে।ধরুন, আপনি কোনো Direct Referrals ঢুকাতে পারবেন না। তাহলে আপনার আরো ৫ দিনের মতো কাজ করতে হবে। তখন আপনার একাউন্টে ব্যালেন্স হবে:- ৩২ গুণ ০.০০১ গুণ ৫ দিন = ১৬০ পেনি। মোট ব্যালেন্স হবে- ৪৮০+১৬০= ৬৪০ পেনি।

এখন আপনি ৬০০ পেনি দিয়ে ৩০ দিনের জন্য ৩ জন Rent Referrals কিনবেন। এই Rent Referrals এর কেউ যদি একদিন কাজ করে তাহলে আপনার একাউন্টে সাথে সাথে ২০ পেনি জমা হবে। ৩ জন কাজ করলে ২০ গুণ ৩= ৬০ পেনি হবে। এভাবে আপনার আয়ের গতি বাড়তে থাকবে। এদিকে আপনার কাজের আয় তো জমা হবেই।

এভাবে ১০ দিন চলতে থাকলে আপনার একাউন্ট ব্যালেন্সে আরো ৩ জন Rent Referrals কেনার টাকা হয়ে যাবে। এই টাকা দিয়ে বার বার Rent Referrals কিনতে থাকুন। আর আপনার নিজের কাজ চালিয়ে যান। এই নিয়মে ২ মাস কাজ করার পর আপনার আয়ের গতি অবশ্যই বেড়ে যাবে।

এতো দিনে আপনিও জেনে যাবেন নিউবাক্সের খুটিনাটি বিষয়াদি। এতক্ষণ আমি যে আলোচনা করলাম তা হলো কেবল এডগুলোতে ক্লিক সম্পর্কে। এডে ক্লিক দিয়েতো আয় করবেন সেইসাথে মিনিজব, সার্ভে, পয়েন্ট অফার, কয়েন অফার ইত্যাদি থেকে প্রতি সপ্তাহে ইনকাম করা যাবে অন্তত ১-২ ডলার। আর এই কাজগুলো করার জন্য আপনাকে নিউবাক্স থেকে কিছু পয়েন্ট দেয়া হবে। এই পয়েন্ট দিয়ে আপনি Rent Referral দের Recycle ও Extend করতে পারবেন।

আর এই কাজগুলো করতে হলে আপনাকে নিউবাক্স সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে হবে।

এভাবে ৩ মাস কাজ করলে আপনার দৈনিক ইনকাম হতে পারে ৩ ডলার এবং মাসিক ইনকাম দাড়াবে ৩ গুণ ৩০= ৯০ ডলার। অর্থাৎ ৭২০০ টাকা।

পরামর্শ:

প্রথমে ২ ডলার উত্তোলন করে পরিক্ষা করবেন। যদি সাথে সাথে টাকা একাউন্টে চলে যায় তাহলে কাজ করবেন, না হলে কাজ বন্ধ করে দিবেন।আর যদি একাউন্টে চলে যায় তাহলে আর কোনো টাকা উত্তোলন না করে Rent Referrals কিনতে থাকবেন।এভাবে কাজ করে যখন আপনার Rent Referrals ৩০০ জন হবেন তখন একাউন্ট আপগ্রেড করার টার্গেট করবেন। একাউন্ট গোল্ডেন না করলে নিউবাক্সে ইনকামের মজা পাবেন না।যেদিন একাউন্ট আপগ্রেড করবেন, মনে রাখবেন আপনার অপেক্ষা ও কষ্টের দিন অনেকটাই কমে গেছে।

একাউন্ট আপগ্রেড করলে কী হয়?

প্রতিদিন আপনাকে ৯টি Fixed Advertisements দেয়া হবে যার ১টির মান হলো ১০ পেনি। আপনি প্রতিদিন পাবেন ১০ গুণ ৯= ৯০ পেনি। আর আরো যে এডগুলো দেয়া হবে এগুলোতো থাকবেই।প্রতি Rent Referrals ক্লিক করলে আপনি পাবেন প্রতিজনে ৪০ পেনি। যদি Rent Referral দের মধ্যে মোট ২৫ জন ক্লিক করে তখন আপনি পাবেন ১ ডলার। এদিকে Direct Referral দের একজন কাজ করলে আপনি জনপ্রতি পাবেন ২০ পেনি। এখন হিসেব মিলিয়ে দেখুন আপনার আয়ের গতি কেমন।

Rent Referrals ক্লিক না করলে কী করবেন?

প্রথমেই বলি, আপনি Rent Referrals কিনবেন বাংলাদেশের সময় রাত ঠিক ১২টার পর। রাত ১২টা থেকে সাড়ে ১২টার ভিতরেই Rent Referrals কিনবেন। তাহলে আপনি ভালো মানের Rent Referrals পাবেন। এরা সবাই কাজ করবে। এরপরও কিছু Rent Referrals কাজ নাও করতে পারে। তখন প্রতি ৫ দিন পর এদেরকে Recycle করবেন।নিউবাক্সের কিছু টেকনিক আছে আপনাকে সেটা আবিস্কার করতে হবে। তাহলে আপনার জীবনের মোড় পাল্ঠে যাবে।

দ্বিতীয় পদ্ধতি

সামান্য টাকা ইনভেস্ট করবেন।

প্রথমেই বলে রাখি যে, নিউবাক্স-এ টাকা ইনভেস্ট করলে প্রতারিত হওয়ার কোনো ভয় নেই। এটা পৃথিবীর নাম করা ভালো ও বিশ্বস্থ কোম্পানি।আপনি একটি ফ্রি একাউন্ট খুলুন। ফ্রিতে একাউন্ট খুললে আপনি হবেন একজন  Standard Member. তারপর ২০ ডলার দিয়ে ১০০ জন রেন্ট রেফারেল কিনতে হবে।

এরপর টানা ৭দিন কাজ করে যান। ৭দিন কাজ করলে এবং আপনার রেন্ট রেফারেলদের কাজের আয় হিসেব করে যা ডলার হবে এগুলো মিলিয়ে আরো যদি ডলারের দরকার হয় পাইজা একাউন্ট থেকে এনে আরো ২০ ডলার দিয়ে পুনরায় ১০০ জন রেন্ট রেফারেল কিনবেন। এবং আরো ৭দিন কাজ চালিয়ে যাবেন। ৭দিন কাজ করলে আপনার একাউন্টে আশা করি ২০ ডলারের মতো টাকা জমা হয়ে যাবে। এই ২০ ডলার দিয়ে তৃতীয় সপ্তাহে আবার ৫০ জন রেন্ট রেফারেল কিনবেন। কাজেই ২১ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর আপনার এখন মোট ২৫০ জন রেন্ট রেফারেল হল। এবার আর রেন্ট রেফারেল না কিনে ৭দিন এদেরকে পরিচালনা করুণ। যে সকল রেন্ট রেফারেল ক্লিক করবে না তাদেরকে রিসাইকেল করুণ। এভাবে ৪র্থ সপ্তাহের মধ্যেই আপনার রেন্ট রেফারেলদের ক্লিক এভারেইজ ভালো পজিশনে নিয়ে যেতে হবে।

এভারেইজ ভালো হলেই ৯০ ডলার দিয়ে আপনার একাউন্ট আপগ্রেড করূণ। একাউন্ট আপগ্রেড করলে কি হবে এটাতো পূর্বে আলোচনা করেছি।এইভাবে রেন্ট রেফারেল কেনা এবং একাউন্ট আপগ্রেড করাতে আপনার ১০ হাজার টাকা খরচ হয়ে যেতে পারে।একাউন্ট আপগ্রেড করার পর প্রতি সপ্তাহে ১০০ জন করে রেন্ট রেফারেল কিনতে পারেন। কিন্তু আমার পরামর্শ হল রেন্ট রেফারেল না কিনে এই ২৫০ রেফারেলদের অন্তত ৩ মাসের জন্য extend করা। সবাই যখন ৩/৮ মাসের জন্য extend করবেন তারপর প্রতি সপ্তাহে ১০০ জন করে রেন্ট করে করে ২০০০ রেন্ট রেফারেল কিনতে থাকবেন। আর হ্যাঁ, রেন্ট রেফারেল ক্লিক না করলে ঘাবড়ানোর কোনো দরকার নেই।তার কারণ নিচে আলোচনা করা হলো:

রেন্ট রেফারেল যদি কাজ না করে?

যদি আপনি গোল্ডেন মেম্বার হন তাহলে রিসাইকেল করার দরকার নেই। কারণ রেন্ট রেফারেল যদি ১৪দিন ক্লিক না করলে গোল্ডেন মেম্বার হিসেবে কোম্পানি আপনাকে বিনা টাকায় এদেরকে রিসাইকেল করে দিবে। এতে আপনার কোনো ফি লাগবে না।আপনি কেবল রেফারেলদেরকে extend করতে থাকুন।

২০০০ রেন্ট রেফারেল হলে আপনার প্রতিদিনের ইনকাম হবে ২৫-৩০ ডলার। গড়ে ২৫ ডলার হলে মাসে হবে ২৫ গুণ ৩০= ৭৫০ ডলার। এই ডলার থেকে রেন্ট রেফারেলদের খরচ বাবদ লাগবে ১০ গুণ ৩০= ৩০০ ডলার। বাকী থাকল ৪৫০ ডলার। তার মানে আপনার মাসিক ইনকাম দাড়ালো ৪৫০ গুণ ৮০= ৩৬০০০ টাকা (আনুমানিক হিসেব ) ।

রেন্টাল রেফারাল Maintenance policy:

প্রথমেই Neobux এ আপনার সার্ভার এর সময় এবং আপনার অ্যাড রিসেট হওয়ার সময় খুজে বের করুন। Neobux এর নিয়ম অনুযায়ী আপনি যদি আপনাকে দেওয়া ৪টি হলুদ রঙের অ্যাড ক্লিক না করেন তাহলে পরবর্তী দিন আপনি আপনার কোন রেফারাল থেকে আয় করতে পারবেন না। এমনকি আপনার Direct Referral থেকেও না।

কিভাবে আপনি Neobux এর সার্ভার সময় জানতে পারবেন?

প্রথমে আপনার Neobux এর অ্যাকাউন্ট এ লগিন করুন। তারপর View Advertisement এ ক্লিক করুন। নতুন পেজ আসলে পেজ এর উপরের দিকে বাম দিকে দেখুন আপনার অ্যাড রিসেট এর সময় এবং ডান দিকে বর্তমান সার্ভার এর সময় দেওয়া আছে। এখন আপনি হিসাব করে নিন।
সবথেকে ভাল আপনি একদিন খুব ভাল ভাবে খেয়াল করুন কখন আপনার অ্যাড রিসেট হচ্ছে। মানে বাংলাদেশী সময়ের ঠিক কোন সময় আপনার অ্যাড রিসেট হচ্ছে তাহলে আপনার ক্লিক করতে সুবিধা হবে। প্রতিদিন ঠিক ঐ সময়েই আপনি নতুন অ্যাড পাবেন। যেমন আমার অ্যাড রিসেট হয় প্রতিদিন বাংলাদেশী সময়ে বিকাল ৪ টা ৪৭ মিনিটে

আমার মনে হয় সার্ভার এর সময় এবং অ্যাড রিসেট সময় সম্পর্কে একটু হলেও আপনাদের ধারনা দিতে পেরেছি। প্রথম প্রথম একটু কঠিন মনে হবে তবে এটা নিশ্চিত খুব তাড়াতাড়ি-ই আপনি সব শিখে যাবেন।

**ডিসকাউন্ট**

আপনি Autopay চালু রাখলে ১৫% ডিসকাউন্ট পাবেন। যেমন আপনার প্রতিটি রেফারাল এর জন্য প্রতি মাসে পে করতে হবে ৩০ সেন্ট তবে আপনি যদি অটো পে চালু রাখেন তাহলে পে করতে হবে ২৫.৫ সেন্ট

এবার আসি রিনিউ এর ডিসকাউন্ট এ

১৫ দিনের জন্য ০%
৩০ দিনের জন্য ৫%

৬০ দিনের জন্য ১০%
৯০ দিনের জন্য ১৮%
১৫০ দিনের জন্য ২৫%

২৪০ দিনের জন্য ৩০%

এখন দেখা যাচ্ছে ১৫, ৩০ এবং ৬০ দিনের রিনিউ এর জন্য আমরা যে ডিসকাউন্ট পাচ্ছি তা অটো পে এর ডিসকাউন্ট থেকে কম (১৫%)। তাই অটো পে চালু রাখাই সবচেয়ে ভাল। তবে আপনি যদি ৯০ বা তার চেয়ে বেশি দিনের জন্য রিনিউ করেন তাহলে অটো পে বন্ধ রাখুন এবং আপনার রেফারাল এর মেয়াদ বাড়িয়ে নিন।

এবার বলবো সব থেকে important বিষয় BEP সম্পর্কে।

BEP কি?

BEP মানে হচ্ছে break even point বা আপনার ভাড়া করা রেফারাল এর গড় (avg.)
ক্লিক এর পরিমান। এখন আপনার রেফারাল এর পরিমানের উপর আপনার BEP এর পরিমান কম বেশি হবে। আপনি যদি আপনার BEP এর নিচে থাকেন তাহলে আপনি লস এ আছেন আর যদি BEP এর উপরে থাকেন তাহলে লাভ এ আছেন।

কখন আপনি একটি রেফারাল Recycle করবেন?

এর জন্য প্রথমে আপনাকে আপনার BEP নির্ণয় করতে হবে।
Standard Member বা ফ্রি মেম্বার হিসেবে আপনি নিচের হিসাব অনুসরণ করুন।

আপনার যদি ১ – ২৫০টি রেফারাল থাকে তাহলে রিনিউ এর সময়ের ওপর আপনার BEP কমবে বা বাড়বে।

যেমন,

রেফারাল এর মেয়াদ

Break even point (BEP)

১৫ দিন =১.৩৩৩

৩০ দিন = ১.২৬৭

৬০ দিন = ১.২০০

৯০ দিন = ১.০৮৯

১৫০ দিন = ১.০০

২৪০ দিন = ০.৮৭

  • এসব বিষয় জানতে চাইলে help এবং FAQ ভালোভাবে পড়বেন। এছাড়া যদি সমস্যা হয় তাহলে support এ massage এর মাধ্যমে জানতে পারবেন।neobux support প্রক্রিয়া খুবই সচল। আপনার massage এর উত্তর ১-২ ঘন্টার ভিতরে জানিয়ে দেয়া হবে।

আরো বিস্তারিত জানতে নিচের লিংকে ক্লিক করুণ:

www.earnmoneyonline24bd.com

www.earnmoneyonline58.blogspot.com

মো: নজরুল ইসলাম

০১৭১৬৩৮৬৯৫৮

পিটিসি সাইটে আয় করতে যে সকল প্রয়োজনীয় বিষয় দরকার সেগুলো নিচে আলোচনা করার চেষ্টা করব।

পিটিসি (paid to click) সাইটগুলোতে ক্লিক করার মাধ্যমেই মূলত আয় করা হয়। পৃথিবীতে প্রায় ১ হাজারেরও বেশি পিটিসি সাইট আছে যার অধিকাংশই ভূয়া এবং নতুন। অনেক সাইটই আছে যারা কিছুদিন রান করার পর উদাও হয়ে যায়। তাই পিটিসি সাইটগুলোতে কাজ আরম্ভ করার পূর্বে অবশ্যই এই সাইটগুলো সম্পর্কে ভালোভাবেই জানতে হবে। কেবলমাত্র ভালো ও লিগেল সাইটগুলোতে কাজ করতে হবে। অন্যথায় পস্তাতে হবে।

পিটিসি সাইটে যারা একেবারেই নতুন এবং আয় করার ফর্মূলা বুঝতে সমস্যা নিচের এই লেখাটি একটু মনোযোগের সাথে পড়বেন।

 নতুনদের জন্য পিটিসিতে যা যা করণীয়:

১. একটি কম্পিউটার ও একটি মডেম থাকতে হবে। মডেম না থাকলে মোবাইল দিয়ে ইন্টানেট কানেকশন করা যেতে পারে।
২. কাজ করার জন্য প্রতিদিন অন্তত ৩০/৪০ মিনিট সময় থাকতে হবে।
৩. যে সাইটগুলোতে কাজ করবেন সেগুলো অবশ্যই লিগেল, গ্রহণযোগ্য ও বিশ্বস্ত হতে হবে। এটি পিটিসি সাইটের অতি মূল্যবান কথা বা পিটিসি সাইটের মূলমন্ত্র।
৪. রাতারাতি বড়লোক হবার স্বপ্ন দেখা চলবে না। আস্তে আস্তে আয়ের গতি বাড়বেই। এতে হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই।
৫. যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পিটিসির কাজ শিখতে হবে এবং পিটিসির নিয়ম-কানুন জানতে হবে।
৬. কাজ পুরাপুরি শিখে গেলে আয়ের গতি কিছুটা বাড়ানোর স্বার্থে ছোট/মাঝারি ধরণের একটি ইনভেস্ট করতে পারেন। এতে আপনার মঙ্গলই হবে।
৭.  দৈর্য্যশীল ও আত্ববিশ্বাসী হওয়া চাই, নইলে হতাশ হয়ে পড়তে পারেন পিটিসির এই বিশাল আয়ের জগতে।

নতুন-পুরাতনদের জন্য আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা

১. যারা অনেক দিন ধরে কাজ করছেন অথচ আয় বাড়াতে পারছেন না, তাহলে ছোট/মাঝারি একটি ইনভেস্ট করুণ। এবং আপনার একাউন্ট আপগ্রেড কনুণ। একাউন্ট আপগ্রেড না করা পর্যন্ত আয় বাড়ানো আসলেই কঠিন।
২. পিটিসি সাইটের Terms of services ভালোভাবে জানুন ও শিখুন।
৩. আপনি যে সাইটে কাজ করবেন সে সাইটের Terms of services ভালোভাবে জানুন। এবং মেনে চলুন।
৪. কাজ না শেখা পর্যন্ত কোনো ইনভেস্ট করবেন না। এবং কাজ না শেখা পর্যন্ত হাল ছাড়বেন না। মানে কাজ ছেড়ে দিবেন না।
৫. অন্তত ৬ মাস কাজ চালিয়ে যান। তারপর ভাল লাগলে করবেন নয়তো ছেড়ে দিবেন।
৬. একজন ভালো রেফারেল এর মাধ্যমে পিটিসিতে কাজ করবেন যাতে আপনি সব রকমের সহযোগীতা পান। গুগল সার্স করে আমি কিছু ইউটিউব এর টিউটোরিয়াল দেখলাম যেগুলোর রেফারেল তিনি নিজেও নতুন এবং আয়ের পরিমাণও সামান্য। এত সামান্য আয় করে তিনি রেফারেল পাবার আশায় টিউটোরিয়াল করতে শুরু করে দিয়েছেন যা আমাকে একেবারেই অবাক করেছে। আপনিও এই টিউটোরিয়ালগুলো দেখলে আমার কথার সত্যতা যাচাই করতে পারবেন। আপনি এ রকম রেফারেল থেকে অবশ্যই দূরে থাকবেন। ভালো রেফারেল আপনার কাজের গতিকে মনিটরিং করবেন যাতে আপনার শ্রম ও কষ্ট বিফলে না যায়।
৭. আপনার কম্পিউটার ও মডেম অন্যকে ব্যবহার করতে দিবেন না এবং একই পিসি থেকে একাধিক একাউন্ট খুলবেন না। এ রকম করলে আপনার একাউন্ট সাসপেন্ড হয়ে যাবে।
৮. এছাড়াও মোবাইল দিয়ে অনেক পিটিসি সাইটে কাজ করা যায়। যেগুলোর মধ্যে আছে-

 

পিটিসি সাইটের জয়-পরাজয়ের খতিয়ান এবং আমাদের করণীয়।

পিটিসি সাইটে প্রতিষ্টিত হওয়ার গোপন চাবি তো আপনারই হাতে।এখানে একটি কথা না বলে পারছি না আর তা হলো পিটিসি সাইটে কাজ করে শতকরা ৯০ জন ব্যক্তিই ব্যর্থ হয়ে থাকেন। আর মাত্র ১০ শতাংশ লোক তাদের পরিশ্রম, মেধা, আত্মবিশ্বাস, দৈর্য্য ও ভাগ্যের ফেরে লাভবান হয়ে থাকেন। পিটিসি সাইটগুলোতে কাজ করে কিভাবে প্রতিষ্টিত হতে পারবেন আজ তারই একটি নির্ভরযোগ্য আলোচনা করব পাঠকদের জন্য।
PTC এর মানে হলো Paid To Click. অর্থাৎ ক্লিক করলেই টাকা দেয়া হয়। পৃথিবীতে যে সমস্ত এড কোম্পানী রয়েছে এরা তাদের এড প্রদর্শনের একটি বোনাস দর্শকদের জন্য মনোনীত করে রেখেছে যাতে সবাই এড দেখতে মনোযোগী হয়। যদি কেউ একজন একটি এড দেখে তাহলে কোম্পানী ঐ এড দেখার বোনাস স্বরূপ কিছু ডলার প্রদান করে থাকে। এই ডলার কিভাবে দেয় তা শুনলে আপনি হতবাক হয়ে যাবেন এতে কোনো সন্দেহ নাই। কারণ ১০০ পেনি= ১ সেন্ট। আর ১০০ সেন্ট= ১ ডলার। আর এই এড কোম্পানীগুলো আপনাকে পেনিই দেবে ডলার নয়। যেমন Neobux প্রতিদিন প্রাথমিক মেম্বারদেরকে ২৬ পেনি থেকে ৭০ পেনি পর্যন্ত তাদের একাউন্টে পাঠাবে। মেম্বারশীপ অনুযায়ী এই পেনি ২০০ থেকে ৩০০ পর্যন্ত হতে পারে যা সবার জন্যই ফ্রি। আপনি এই এডগুলোতে ক্লিক করে ১ পেনি, ১ পেনি করে আয় করতে হবে। এই পেনির আয়ের বর্ণনা শুনে অনেকেই আবার হতাশ হলেন না তো? হতাশ হবারই কথা। কিন্তু এই পেনি পেনি আয় একদিন আপনার জীবনের চাকা যে পাল্টে দিতে পারে তা কিন্তু আপনি যানেন না। আর আমার লিখনীর আসল উদ্দেশ্যই হলো পেনির রহস্য নিয়ে। প্রতিটি পিটিসি সাইটের আয় শুরু হয় পেনি দিয়ে। আসুন কিভাবে পেনি পেনি আয় থেকে ডলার ডলার আয় করা যায় জেনে নেই এর গোপন রহস্য ।আর ক্যারিয়ার গঠনের প্রতি হই মনোযোগী।

 

পিটিসি সাইটে কাজ করে সাফল্য লাভের আরো কিছু কথা এখানে আমি point আকারে আলোচনা করব যা পাঠ করে আপনারা  উপকৃত হবেন এটা আমার একান্ত বিশ্বাস

পিটিসির কাজকে একটি চাকরী মনে করুণ:

একজন লোক ক্লাস ওয়ান থেকে এমএ পাস করতে কমপক্ষে সময় লাগে ১৭-১৮ বছর। তারপর চাকরি পেতে হলে আরো যে কত দিন লাগে তা তো সবারই জানা। আর আপনি যদি পিটিসি সাইটে কাজ করে মাত্র ৩-৪ মাসে রাতারাতি বড়লোক হতে চান এটা যুক্তিসঙ্গত নয়। বিষয়টি একটু ভেবে চিন্তে দেখতে অসুবিধা কোথায়? কাজেই আপনার এই কাজকে একটি গুরুত্বপূর্ণ চাকরী ভেবে দৈনিক কাজ করে যান বিরামহীনভাবে।

সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা করুণ:

সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা আপনার কাজের গতিকে করবে গতিশীল এবং আয়ের পরিমাণ হবে আশানুপাত। কোন সময়ে কোন সাইটের কাজ করবেন তার একটি বিজ্ঞানসম্মত রুটিন তৈরী করুণ আর আপনার মূল্যবান সময়কে কাজে লাগান। মনে রাখবেন Time is money. ইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে- Time and tide waits for none.

সহযোগী দল তৈরী করুণ:

যৌথ প্রয়াস সব সময় কাজের গতিকে করে ত্বরান্বিত। একার পক্ষে যা সম্ভব নয়, সমবেত প্রচেষ্টায় তা হয়ে উঠে সহজ। মনে রাখবেন পিটিসির আয়ের একটি বিরাট অংশ পূরণ হয় গ্রুপ তৈরী ও যোগাযোগের মাধ্যমে। একে অপরের সহযোগীতার হাত সম্প্রসারিত করুণ এতে উভয়েরই মঙ্গল অনিবার্য।

ধৈর্য্য ধারন করুণ:

পিটিসি সাইটে কাজ করতে হলে আপনাকে খুবই ধৈর্যশীল হতে হবে। ইংরেজিতে বলতে গেলে বলতে হয়- “Patience is the key to success specially for PTC sites.” অতি গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো পিটিসি সাইটে দৈর্য্যসহকারে মাত্র ৬-৯ মাস কাজ করুন তারপর হিসেব মিলিয়ে দেখুন আপনার জীবনে নতুন একটি অধ্যায় সুচিত হবে যা আজীবনের জন্যই উম্মোক্ত থাকবে। আপনি যদি বিদেশেও চলে যান, আপনার আয় কখনো বন্ধ হবে না। এমনকি বিদেশে পাড়ি দিলে আপনার পিটিসি ইনকাম আরো দ্বিগুন হয়ে যাবে, এটাতো সবাই-ই জানেন। কাজেই মাত্র ৪/৫ টি ভালো পিটিসি সাইট বাছাই করে আজীনের জন্য খন্ডকালীন চাকরি হিসেবে বেছে নিতে কোনো অসুবিধা থাকছে না।।

আত্মবিশ্বাসী হউন:

আমি পারব, আমাকে পারতেই হবে, এরকম মনোভাব নিয়ে কঠোর পরিশ্রম, অধ্যাবসায় ও অনুশীলনের দ্বারা বহু অসাধ্য কাজও অনায়াসে সমাধা করা যায়। অনুশীলন, অধ্যাবসায় ও প্রচেষ্টার মাধ্যমে স্মৃতিশক্তি পর্যন্ত অর্জন করাও সম্ভব। যার জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন বিংশ শতাব্দীর প্রতিভাধর বিজ্ঞানী আইন স্টাইন যিনি জার্মানীতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। মা সঙ্গীত প্রিয় ছিলেন ফলে মায়ের উৎসাহেই তিনি ৬ বছর বয়সে বেহালা বাজাতে শিখেছিলেন। লেখাপড়ায় খুবই দুর্বল হওয়ায় ৯ বছর বয়সেও তিনি স্কুলে ভর্তি হতে পারেননি। ভর্তি পরীক্ষায় সাফল্য লাভের জন্য তাকে দু’দুবার পরীক্ষা দিতে হয়েছিল। ডিগ্রী পরীক্ষায় কোনো রকমে পাশ করতে তাকে অমানুষিক পরিশ্রম করতে হয়েছিল। স্মৃতি শক্তির স্বল্পতা হেতু তিনি স্কুলে চাকরী জোটাতে ব্যর্থ হলেন। তারপর তিনি স্মৃতি শক্তি বাড়ানোর জন্য সচেষ্ট হলেন। ক্রমাগত অনুশীলন ও অধ্যাবসায়ের ফলে অবশেষে স্বরণ শক্তি বাড়াতে সক্ষম হলেন। আর পদার্থ বিজ্ঞানে অর্জন করলেন নোবেল পুরষ্কার।

মনে রাখতে হবে বহুবার ব্যর্থতার সিড়ি বেয়েই সাফল্যের দরজায় পৌছতে হয়। এভারেষ্ট বিজয়ের কথাই ভাবুন। দীর্ঘ ২২ বছর অভ্যাহত প্রচেষ্টার পর দুর্গম গিরি শৃঙ্গ জয় করেছিলেন এডমান্ড হিলারী ও তেনজিং। তার পূর্বে এই রেকর্ড করতে গিয়ে ১৬ জনের প্রাণ দিতে হয়েছিল। উপলব্দি করুণ এই গিরি শৃঙ্গ জয় করতে কত দু:সাহসিক অভিযানের দরকার হয়েছে। অধ্যাবসায়, পরিশ্রম, আত্ববিশ্বাস ও সহিষ্ঞুতা ছাড়া কেইবা সাফল্য লাভ করতে পেরেছে?

নিউটন বলেছিলেন, “ আমার আবিষ্কারের কারণ আমার প্রতিভা নয়। বহু বছরের পরিশ্রম ও নিরবিচ্ছিন্ন চিন্তার ফসল। যখনই যা আমার মনের সামনে এসেছে আমি শুধু তারই মিমাংশায় ব্যস্ত থাকতাম। ফলে অস্পষ্টতা থেকে ধীরে ধীরে স্পষ্টতার মধ্যে উপস্থিত হয়েছি।‍‌‍”

 দার্শনিক ইয়ং বলতেন “ মানুষ যা পেরেছে, মানুষ তা পারবে।”

 নিজেকে সুস্থ রাখুন:

জীবনকে প্রতিষ্ঠিত করতে প্রয়োজন সুস্থতা ও সুস্বাস্থ্য। নিয়মিত ব্যায়াম, পরিমিত ঘুম, পরিমিত পুষ্টিকর খাবার সুস্বাস্থ্যের জন্য অতিব জরুরী। সুস্বাস্থ্যের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বলতে গেলে কবি নির্মলেন্দু গুণের কথাটি খুবই মনে পড়ে। তিনি বলেছিলেন,
“আকাশের সূর্যটা যদি তুমি ছুঁতে চাও, স্বাস্থ্যটা ভালো করো এখনই শুতে যাও। ঘুম যদি ভালো হয় স্বাস্থ্যটা ফুটবে, সূর্যের সাথে সাথে ঘুম থেকে উঠবে।”
আর ইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে- Early to bad and early to raise makes a man healthy,  wealthy and wise. অর্থাৎ সকাল সকাল ঘুমিয়ে যারা সকাল সকাল উঠে, স্বাস্থ্যবান, ধনী আর বিজ্ঞ তারাই বটে।

যোগাযোগ করতে চাইলে:

মো: নজরুল ইসলাম দুলু

মোবাইল: ০১৭১৬৩৮৬৯৫৮

 

 

 

Comments (20)

  1. Md Nazrul Islam Dec 05, 2015
  2. Md Nazrul Islam Dec 05, 2015
  3. Md Nazrul Islam Dec 05, 2015
  4. Puspa Akter Papia Dec 05, 2015
  5. Ptc Neobux Dec 05, 2015
  6. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015
  7. Rafi Hossain Dec 05, 2015
  8. Rafi Hossain Dec 05, 2015
  9. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015
  10. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015
  11. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015
  12. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015
  13. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015
  14. Md Nazrul Islam Dulu Dec 05, 2015

Leave a Reply