Templates by BIGtheme NET
BREAKING
  • মানসম্মত পোস্টের অভাবে প্রতি পোস্টে ২০ টাকা অফার টি বাতিল করা হয়েছে। এখন থেকে কেউ পোস্ট করলে কোন টাকা পাবেনা।
  • তবে কেউ যদি মানসম্মত পোস্ট করতে আগ্রহী হন তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করছি।
  • ** এখন থেকে শুধু মাত্র নির্বাচিত ব্যক্তিরাই পোস্ট করলে টাকা পাবে।
11:35

Earn money by writing blog

ইন্টারনেট থেকে আয়-রোজগারের বিষয়টি এখন বিশ্বব্যাপী বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। ইন্টারনেটে বহুমুখী কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে যে কেউ ঘরে বসেই অর্থ আয় করতে পারেন। এ সুবিধা দিতে ইন্টারনেটে রয়েছে প্রচুর বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান বা ওয়েবসাইট। এগুলোর একেকটির কাজ একেক রকম। তবে ইন্টারনেটে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ব্যবহারকারীকে ব্লগিংয়ের মাধ্যমে আয় করার প্রতি ঝুঁকে থাকতে দেখা যায়। সাধারণত ব্লগাররা কোনো বিষয়ের ওপর আলাদা একটি ব্লগ খুলে সেখানে ব্লগিং করে থাকেন এবং ব্লগে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন যেমন অ্যাডসেন্স অ্যাডব্রাইট ইত্যাদি ব্যবহার করে আয় করে থাকেন। তবে সবার জন্য অ্যাডসেন্স জাতীয় প্রতিষ্ঠান থেকে ভালো আয় করা সম্ভব হয় না। অনেকে খুব ভালো লিখেও তেমন একটা আয় করতে পারেন না। অন্যদিকে কেউ কেউ তেমন কিছু না লিখে ব্লগকে জমিয়ে তুলে দু’হাতে আয় করতে থাকেন। তবে যারা ভালো লিখতে পারেন (ইংরেজিতে), তাদের জন্য অ্যাডসেন্স জাতীয় প্রতিষ্ঠানের চেয়ে অল্প পরিশ্রমে ভালো আয় করার সুযোগ রয়েছে ইন্টারনেটে।
ইন্টারনেটে গড়ে উঠেছে সৃজনশীল লেখক বা ব্লগারদের জন্য এক মার্কেট প্লেস যার মাধ্যমে আপনি আপনার প্রতিটি পোস্ট বা আর্টিকেলের জন্য নির্ধারিত পরিমাণ মূল্য তথা দাম পাবেন। এমন অসংখ্য প্রতিষ্ঠান আছে যারা আপনার নিজের ব্লগে নির্দিষ্ট কোনো বিষয়ে বা তৃতীয় কোনো প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে রিভিউমূলক পোস্ট লেখার বিনিময়ে আপনাকে তার মূল্য পরিশোধ করে থাকে। এসব প্রতিষ্ঠানের কেউ কেউ আবার মোট মূল্যের ওপর শতকরা হারও নিজেরা রেখে দেয়। আসুন জেনে আসি তেমন কিছু প্রতিষ্ঠানের কথা, যারা আপনার নিজের ব্লগে পোস্ট করার বিনিময়ে অর্থ প্রদান করে থাকে।
কিন্তু কীভাবে? এসব নিয়ে বিস্তারিত লিখেছেন-
এম. হারুন অর রশিদ

পে-পার-পোস্ট
http://payperpost.com
পে-পার-পোস্টেও রয়েছে প্রচুর বিজ্ঞাপনদাতা বা অ্যাডভার্টাইজার, যারা নিজেদের পণ্য সম্পর্কে রিভিউ লেখার জন্য ব্লগারদের অপেক্ষায় থাকে। পে-পার-পোস্ট সর্বাধিক ব্যবহারকারীসমৃদ্ধ ও সর্বাধিক জনপ্রিয় একটি প্রতিষ্ঠান। এটির ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জনের অন্যতম কারণ—তারা ব্লগারের আয়ের কোনো শতকরা হার নেয় না। আপনি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পে-পার-পোস্টে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন এবং আপনার ব্লগ অনুমোদন করার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে আবেদনের আগে আপনার ব্লগ অবশ্যই ন্যূনতম এক মাস পুরনো হতে হবে এবং অন্ততপক্ষে দশটি পোস্ট প্রকাশিত থাকতে হবে। আপনার পোস্ট প্রকাশ করার পর তাদের সেটা অনুমোদনের জন্য জানাতে হবে। পোস্ট অনুমোদিত হওয়ার ত্রিশ দিন পর আপনি পে-পালের মাধ্যমে টাকা পাবেন যা মার্কিন ডলারের হিসাবে হবে। উদাহরণস্বরূপ, প্রথম পোস্ট হিসেবে আপনাকে পে-পার-পোস্ট নিয়েই একটি রিভিউ লিখতে হবে। সেটা অনুমোদিত হলে আপনাকে ২০ ডলার দেয়া হবে তার মূল্যস্বরূপ।

সোশ্যাল স্পার্ক
http://socialspark.com
সোশ্যাল স্পার্ক একই ধরনের আরেকটি প্রতিষ্ঠান। এটি মূলত পে-পার-পোস্টের প্রতিষ্ঠাতা প্রতিষ্ঠান আইজিয়া’র তৈরি। এটিকে মূলত সোশ্যাল মিডিয়া হিসেবে তৈরি করা হয়েছে। এখানে আপনি একটি অ্যাকাউন্ট খুলে আপনার ব্লগকে বিজ্ঞাপনদাতাদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে পারবেন এবং রিভিউ লেখার প্রেক্ষিতে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ব্লগ অনুমোদিত করার জন্য আপনার ব্লগটি ন্যূনতম তিন মাসের পুরনো হতে হবে। সোশ্যাল স্পার্ক পে-পালের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করে থাকে। এছাড়া অন্যান্য নিয়মাবলি পে-পার-পোস্টের মতোই।

রিভিউ মি
http://reviewme.com
রিভিউ মি ইন্টারনেট জগতে আরেকটি বিখ্যাত নাম, যারা প্রতিটি আর্টিকেল বা পোস্টের বিনিময়ে ন্যূনতম ৪০ ডলার দিয়ে থাকে। অবশ্য তারা মোট মূল্যের ৫০ শতাংশ নিয়ে নেয়। অর্থাত্ প্রতিটি পোস্টের বিনিময়ে আপনার সর্বনিম্ন আয় হতে পারে ২০ ডলার। তবে রিভিউ মি নেটওয়ার্কে আপনার ব্লগ অনুমোদন করাতে চাইলে আপনার ব্লগ অবশ্যই গুগল পেজ র্যাঙ্কে ৪ হতে হবে এবং প্রতিদিন প্রায় ১ হাজার হিট বা ভিজিটর থাকতে হবে। জনপ্রিয় ও অধিক ভিজিটরসমৃদ্ধ ব্লগগুলোর জন্য সেরা একটি প্রতিষ্ঠান হতে পারে রিভিউ মি।

লাউড লঞ্চ
http://loudlaunch.com
লাউড লঞ্চ হচ্ছে পে-পার-পোস্টের মতো আরেকটি প্রতিষ্ঠান যারা প্রতিটি পোস্টের বিনিময়ে অর্থ দিয়ে থাকে। লাউড লঞ্চ ব্লগ অনুমোদন করতে বেশ সময় নেয় যদিও এদের পোস্ট অনুমোদন করার পর মূল্য পরিশোধ করা হয় খুব দ্রুত এবং পে-পালের মাধ্যমে। লাউড লঞ্চে ব্লগ যুক্ত করার জন্য আপনার ব্লগ অবশ্যই ন্যূনতম দু’মাস পুরনো হতে হবে।

স্পন্সরড রিভিউ
http://sponsoredreviews.com
স্পন্সরড রিভিউ পে-পার-পোস্টের মতোই আরেকটি বিখ্যাত ও বিশাল ইন্টারনেট মানি-ব্লগিং মার্কেট প্লেস। তবে এই নেটওয়ার্কে আপনাকে বিজ্ঞাপনদাতাদের বা যাদের পণ্য সম্পর্কে রিভিউ লিখতে হবে তাদের খুঁজে নিতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট পোস্টটির জন্য আপনাকে দাম বিড করতে হবে। বিজ্ঞাপনদাতা আপনার বিড করা দাম দেখবে এবং প্রয়োজনে আপনার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করবে। একইভাবে বিজ্ঞাপনদাতাও আপনাকে দিয়ে রিভিউ লেখানোর জন্য বিড করতে পারে এবং আপনি প্রয়োজনে তাদের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন। এমনটি হয়ে থাকে যদি আপনার লেখা সৃজনশীল, তথ্যমূলক, গোছানো ও সুন্দর ব্যাখ্যাপূর্ণ হয়। স্পন্সরড রিভিউ আপনার উপার্জিত অর্থের (প্রতিটি পোস্টে প্রাপ্ত মূল্য থেকে) শতকরা ৩৫ শতাংশ কমিশন হিসেবে নিয়ে থাকে। এছাড়া তাদের মূল্য পরিশোধ পদ্ধতিও পে-পালের মাধ্যমে এবং তারা যেসব ব্লগ অনুমোদন করে সেগুলো ন্যূনতম তিন মাস পুরনো হতে হয় এবং মেজর সার্চ ইঞ্জিনগুলোর আওতাভুক্ত হতে হয়।
ওপরের প্রতিষ্ঠানগুলো ছাড়াও আরও বেশকিছু ওয়েবসাইট আছে যারা এ জাতীয় সেবা দিয়ে থাকে। লক্ষণীয় বিষয় হচ্ছে, আপনার ব্লগের প্রতিটি পোস্টের জন্য এসব কোম্পানি টাকা দিয়ে থাকে না। বরং কোম্পানির ওয়েবসাইট থেকে বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে সেই তথ্যের ভিত্তিতে পোস্ট লিখতে হয়। পরে সংশ্লিষ্ট কোম্পানি বা বিজ্ঞাপনদাতা আপনার লেখাটি পড়ে দেখবে এবং পছন্দ হলে তা অনুমোদন করবে। অনুমোদিত পোস্টের মূল্য পে-পালের মাধ্যমে পরিশোধ করা হয়ে থাকে। কিন্তু পে-পাল বাংলাদেশ সাপোর্ট করে না। সেক্ষেত্রে প্রবাসে থাকা আপনার পরিচিত এবং বিশ্বস্ত কারও সহায়তা নিতে পারেন।

 

©2016 এসো আয় করি ডট কম Developed by ABASAYA IT