ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খুলবেন? সেলফি ভিডিও-তে পরিচয় নিশ্চিত করতে হবে

কখনো কি আপনার ফেসবুক একাউন্ট হ্যাকিংয়ের চেষ্টা হয়েছে? অথবা অপরিচিত কোন এলাকা বা কম্পিউটার থেকে লগইন হয়েছে, যা আপনি মনে করতে পারছেন না? আপনার একাউন্ট থেকে আপনার অজান্তেই কারো কাছে বার্তা চলে যাচ্ছে?

এরকম হলে আপনার একাউন্টে হয়তো অযাচিত প্রবেশের ঘটনা ঘটেছে।

সাইবার হামলা, একাউন্ট হ্যাকিংয়ের চেষ্টা নতুন নয়। ইন্টারনেটের প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে এই প্রবণতা অনেক বেড়েছে। কিছুদিন আগে এরকম একটি হামলায় পাঁচ কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য চুরি হয়েছে।

ফেসবুকের জনপ্রিয়তা যেমন বাড়ছে, সেই সঙ্গে বাড়ছে বিভিন্ন একাউন্টে ব্যক্তিগত তথ্য থাকা এবং সামাজিক বা ব্যবসায়িক যোগাযোগ থাকার কারণে একাউন্টগুলো অনেক ক্ষেত্রেই হ্যাকারদের লক্ষ্যে পরিণত হচ্ছে।

সরকারি হিসাবে বাংলাদেশে প্রায় তিন কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারী রয়েছেন।

বিটিআরসি জানিয়েছে, জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত তারা সামাজিক মাধ্যম সম্পর্কিত ১২১টি অভিযোগ পেয়েছে। মূলত ফেসবুক ব্যবহার করে গুরুতর অপরাধ বা সমস্যা তৈরি করার অভিযোগ বিটিআরসি পর্যন্ত গড়ায়।

তথ্য গোপন বা ভুয়া নাম-পরিচয় দিয়ে অনেকেই অ্যাকাউন্ট খোলে ফেসবুকে। তাই অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীদের আসল পরিচয় জানতে তাদের সেলফি ভিডিও সংগ্রহের পরিকল্পনা এঁটেছে সাইটটি। বিশেষ পরিস্থিতিতে কোনো ব্যবহারকারীর পরিচয় নিশ্চিত করার প্রয়োজনে ওই ফিচারটিকে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে ফেসবুকের।

নতুন এ পদ্ধতি চালু হলে অ্যাকাউন্ট খোলার সময় বা সন্দেহভাজন অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীদের প্রকৃত তথ্য জানতে তাদের চেহারার বিভিন্ন দিকের কয়েক সেকেন্ডের সেলফি ভিডিও আপলোড করতে হবে।

সম্প্রতি ফেসবুক অ্যাপের ভেতরে নতুন ভেরিফিকেশন সিস্টেমটি খুঁজে পান ডেভেলপার ও গবেষক জেন ম্যানচুন ওং। ফেসবুকের নতুন অ্যাপটি এখনো উন্মুক্ত করা হয়নি।
ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ব্যবহারকারীদের প্রকৃত পরিচয় নিশ্চিত হতেই এ উদ্যোগ। ফেসবুক চালু থাকা অবস্থায়ই সেলফি ভিডিও ধারণ করে জমা দেওয়া যাবে, যা ৩০ দিনের মধ্যে মুছে ফেলা হবে। উল্লেখ্য, নির্দিষ্ট ব্যবহারকারীদের ওপর নতুন অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশন সিস্টেম পরখ করলেও কবে নাগাদ চালু হবে তা নিশ্চিত করেনি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার নাজমুল ইসলাম বলছেন, “প্রতিদিন ফেসবুক সম্পর্কিত গড়ে প্রায় পাঁচশো অভিযোগ আমরা পাই। এর বেশিরভাগই একাউন্ট হ্যাক হয়ে গেছে, প্রবেশ করা যাচ্ছে না এ ধরণের।”

তবে হ্যাকিং বা সমস্যার শিকার হলেও অনেক অভিযোগই কর্তৃপক্ষ পর্যন্ত যায়না।

Comments (No)

Leave a Reply