এই সাইটের কোন লেখা কপি করা নিষেধ

ফেসবুকে সিপিএ মার্কেটিং করবেন যেভাবে

‘সিপিএ মার্কেটিং করে আয় করবেন যেভাবে‘ লেখাটি হয়তো আপনারা অনেকেই পড়েছেন এবং জেনেছেন সিপিএ মার্কেটিং থেকে আয় করার পদ্ধতি। এবার আমার এ লেখা থেকে জানুন ফেসবুকে সিপিএ মার্কেটিং করার ফ্রি মেথড সম্পর্কে।

ফ্রি বলতে আমি আপনাদের বুঝিয়েছি কিভাবে আপনি সিপিএ এর অফারগুলো ফ্রিতে শেয়ার করার মাধ্যমে বেশি পরিমাণ ট্র্যাফিক জেনারেট করতে পারবেন। তবে জেনে রাখা ভাল যে, পেইড মেথডে আপনি যে পরিমাণ ট্রাফিক জেনারেট করতে পারবেন, ফ্রি মেথডে ঠিক সেই পরিমাণ ট্রাফিক জেনারেট করতে পারবেন না। কিন্তু ফ্রি বলে তো ফেলে দেয়া যায় না, বরং ঠিক মতো করতে পারলে আপনি এই ফ্রি মেথড ইউজ করেই প্রচুর পরিমাণে ট্রাফিক জেনারেট করতে পারবেন।

জনপ্রিয় সব সোশ্যাল কমিউনিকেশন মাধ্যমগুলোর মধ্যে যেহেতু ফেসবুক এগিয়ে আছে, তাই আমি এই আর্টিকেলে ফেসবুকে কিভাবে আপনারা ফ্রি মেথডে সিপিএ মার্কেটিং করবেন সেটা নিয়ে আলোচনা করবো।

ফেসবুকে সিপিএ মার্কেটিং এর ফ্রি মেথড

এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের জন্য লিখেছি কিভাবে ফেসবুকে ফ্রি মেথড ব্যবহার করে ট্রাফিক জেনারেট করবেন। আপনারা চাইলে আরো অন্যান্য যে সকল সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে, সেগুলোতেও প্রায় একই রকম পদ্ধতিতে সিপিএ মার্কেটিং করতে পারবেন।

তবে আপনি ফ্রি অথবা পেইড যেভাবেই অফার প্রমোট করতে চান না কেনো প্রথমেই আপনাকে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে তা হলো-

  • আপনি কি ধরণের অফার নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক?
  • আপনি কোন কোন দেশের মানুষের কাছে আপনার অফারগুলো পৌঁছাতে চাচ্ছেন?
  • আপনি যে অফারগুলো নিয়ে কাজ করবেন সেগুলো কি সব বয়সের মানুষের জন্য নাকি নির্দিষ্ট একটা বয়সের মানুষের জন্য?
  • আপনার অফারগুলো কি ছেলে-মেয়ে উভয়ের জন্য?

আপনি যেকোনো অফার নিয়ে কাজ করার আগেই আপনাকে উপরের বিষয়গুলো নিয়ে ভেবে নিতে হবে। কারণ, এই কয়েকটি বিষয় আপনার মার্কেটিং-এ ব্যাপক প্রভাব ফেলবে।

ফেসবুকে আপনি অনেকভাবে ফ্রি মেথড ব্যবহার করে আপনার অফারগুলো প্রমোট করতে পারবেন, যেমন-

  • ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে
  • ফেসবুক পেজের মাধ্যমে
  • ফেসবুক অ্যাকাউন্ট করার মাধ্যমে

ফেসবুক গ্রুপে সিপিএ মার্কেটিং

আপনি কোন অফার নিয়ে কাজ করতে চাচ্ছেন সেটি আগে সিলেক্ট করুন। এখন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এই অফারটি কোন দেশের মানুষের জন্য প্রযোজ্য সেটা ভালো করে জানা।

মনে করুন, আপনি যে অফারটি নিয়ে কাজ করছেন সেটি কানাডার মানুষের জন্য। এখন আপনি একটি ফেসবুক গ্রুপ তৈরি করলেন যেখানে সব মানুষ বাংলাদেশী। তাহলে এই গ্রুপে আপনি আপনার অফারটি শেয়ার করলেও আপনার কোনো লাভ হবে না।

তাহলে আপনাকে এমন একটি গ্রুপ তৈরি করতে হবে যেখানে সব কানাডার মানুষ থাকবে। তাহলেই আপনি অফারটি শেয়ার করার মাধ্যমে লাভবান হবেন।

এখন এমন একটা গ্রুপ আপনাকে তৈরি করতে আপনি ফেসবুক থেকে হেল্প নিতে পারেন। আপনাকে আগে এমন সব ফ্রেন্ড আপনার লিস্টে অ্যাড করতে হবে যারা সবাই কানাডায় থাকে। এখানে অন্য কোনো দেশের মানুষ থাকবে না। তারা কোন কোন গ্রুপে অ্যাড আছে তা আপনাকে জানতে হবে। তারপর তাদেরকে আপনার এই গ্রুপে অ্যাড করতে হবে। এভাবে আপনি আপনার গ্রুপে মেম্বার সংখ্যা বাড়াতে পারবেন।

আপনি যদি বিভিন্ন অফার নিয়ে কাজ করে থাকেন, তাহলে আপনাকে প্রতি অফারের জন্য আলাদা আলাদা গ্রুপ খুলতে হবে। যেমন আপনি চাইলে বিউটি টিপস্ এবং হেলথ টিপস‌্ সম্পর্কিত অফারগুলো একই গ্রুপে দিতে পারেন। কিন্তু এই গ্রুপে তো আর আপনি বার্গারের অফার দিতে পারবেন না। তেমনি আপনি বিভিন্ন দেশের অফার নিয়ে কাজ করলে প্রতিটি দেশের জন্য আলাদা আলাদা গ্রুপ থাকতে হবে।

ফেসবুক পেজে সিপিএ মার্কেটিং

ফেসবুক গ্রুপের মতো ফেসবুক পেইজের মাধ্যমেও আপনি যদি মার্কেটিং করতে চান, তাহলে আপনাকে বিভিন্ন অফারের জন্য আলাদা আলাদা পেইজ তৈরি করতে হবে। যেখানে এমন সব মানুষ থাকবে যাদের জন্য মূলত এই অফার।

ধরা যাক, আপনি এমন একটি পেইজ তৈরি করলেন যেখানে বেশিরভাগ মানুষ ৫০ বছরের উপরে। এই পেইজে আপনি একটি নতুন অ্যান্ড্রয়েড গেমের অফার পোস্ট করলেন। তাহলে তো আপনার মার্কেটিং হবে না। কষ্ট করে যাবেন ঠিকই, কিন্তু কোনো ফল পাবেন না।

এখানে আমি আপনাকে একটি ভালো টিপস্ দিতে পারি। ফেসবুকে আপনি যখন কোনো পোস্ট টাকা দিয়ে বুস্ট করতে যাবেন তখন আপনার কাছে এমন কিছু প্রশ্ন জানতে চাওয়া হবে, যেমন- আপনার এই অফার কোন দেশের মানুষের জন্য, কত বয়সের মানুষের জন্য, শুধু কি ছেলেদের জন্য নাকি শুধু মেয়েদের জন্য বা উভয়ের জন্য। এই প্রশ্নগুলোর উত্তর দিলে আপনাকে ঠিক এমন কিছু পেইজ দেখাবে যে পেইজগুলোতে ঠিক এই মানুষগুলোই এক্টিভ আছে।

এতে করে আপনার লাভ হলো আপনি এই পেইজগুলোতে গিয়ে সেখান থেকে তাদেরকে আপনার পেজে ইনভাইট করতে পারবেন। তবে আমি আপনাদের যে প্রসেসের কথা বললাম সেটা করতে আপনাকে কোনো পোস্ট বুস্ট করতে হবে না। শুধু বুস্ট করার জন্য কয়েকটি ধাপ এগিয়ে যাবেন। তাহলেই আপনারা দেখতে পাবেন যে আপনার কাঙ্ক্ষিত ট্র্যাফিক কোন কোন পেইজে আছে। এভাবেই আপনি ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে মার্কেটিং করতে পারবেন একদম ফ্রিতে।

ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সিপিএ মার্কেটিং

সিপিএ মার্কেটিং এর ফ্রি মেথডটি এতক্ষণ পড়ে অবশ্যই এটা বুঝতে পেরেছেন যে, ফ্রিতে মার্কেটিং করতে হলে আপনাকে অনেকগুলো অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। কারণ আপনি তো আর একই দেশের অফার নিয়ে কাজ করবেন না। বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন অফার নিয়ে আপনি কাজ করবেন। তাই আপনার অবশ্যই অনেকগুলো অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে ফেসবুকে

এছাড়া আপনি অনেকগুলো অ্যাকাউন্ট তৈরি করার মাধ্যমে ম্যাসেঞ্জারেও মার্কেটিং করতে পারবেন। মনে করুন আপনার এমন একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আছে যেখানে চার হাজারের উপরে কানাডার ফ্রেন্ড আছে। এখন আপনি চাইলে তাদের সাথে মেসেঞ্জারেও আপনার অফার শেয়ার করতে পারেন।

তাছাড়া আপনার যদি কিছু ভালো বন্ধু হয়ে যায় তাহলে তো আর সমস্যাই নেই। আপনি আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে বিভিন্ন অফার নিয়ে এমনিতেও পোস্ট করতে পারবেন।

অনলাইনে মার্কেটিং করার মূল টিপস হলো ট্র্যাফিক জেনারেট করা। যে যত বেশি ট্র্যাফিক জেনারেট করতে পারবে তার তত বেশি লাভ হবে। শুধু ফেসবুক নয়, আপনি চাইলে টুইটার, ইন্সটাগাম এগুলোতেও মার্কেটিং করতে পারেন। আজ জানলেন ফেসবুকে সিপিএ মার্কেটিং করার ফ্রি মেথড।

যদি লেখাটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Comments (No)

Leave a Reply