পুরানো অথবা গার্মেন্টস এর ঝুট কাপড় থেকে তুলা তৈরীর কারখানা

বর্তমানে বাংলাদেশে চাকরী পাওয়া অনেক কঠিন । তাই অনেকেই উদ্দেক্তা সফল হতে চাই । আজ আমি আপনাদেরকে এমন এক ব্যবসার কথা জানাবো যার মাধ্যমে আপনারা ব্যাবসা করে জিবনে সফল হতে পারবেন ।আর এই ব্যাবসা হচ্ছে পুরানো অথবা গার্মেন্টস এর ঝুট কাপড় থেকে তুলা তৈরীর কারখানা ।

কীভাবে শুরু করবেন?
প্রথমে আপনাকে কারখানা স্থাপন করার জন্য জমি কিনতে হবে অথবা নিজের জমি থাকলে সেখানে করতে পারেন।এর পর আপনাকে এই ব্যাবসাই ১০ লক্ষ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা বিনিয়গ করতে হবে। এই টাকা হতে আপনাকে কারখানার প্রয়োজনীয় জিনিস ও মেশিন কিনতে হবে এবং তুলা তৈরির জন্য কাপড় কিনতে হবে।

কিভাবে তুলা তৈরি করবেন?

প্রথমে পুরনো কাপরগুলোকে মেশিনের সাহায্যে কেটে টুকরো করে নিয়ে ভালভাবে রোদে শুকাতে হবে। এরপর রঙ অনুসারে আলাদা আলাদা শ্রেণীবিন্যাস করতে হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে মেশিনের সাহায্যে টুকরো কাপড়গুলো খুলে তুলা উৎপাদন করা হয়।এই তুলা তৈরির মেশিন চালানোর জন্য ।বিশেষ যোগ্যতার প্রয়োজন নেই। মেশিন চালানোর জন্য দক্ষ অপারেটর নিয়োগ দিতে হবে। এই তুলা গুলা সাধারণত লেপ-তোষক, সোফা, জাজিম তৈরিতে এ তুলার প্রয়োজন হয়। তাছাড়া স্পিনিং মিলগুলোতে এ তুলার প্রচুর চাহিদা রয়েছে। বর্তমানে এ ধরনের তুলা বিদেশেও রপ্তানি হচ্ছে।

এই ব্যাবসা থেকে প্রতি মাসে সব ধরনের খরচ বাদ দিয়ে মাসে ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব।

Comments (No)

Leave a Reply